আড়াইহাজারে পুলিশের পোষাক পড়ে ডাকাতি

915

স্টাফ রিপোর্টার : নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় পুলিশের পোষাকধারী একদল ডাকাত দল নৈশপ্রহরীর হাত পা বেধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে দূর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটিয়েছে। এ সময় তিনটি স্বর্ণের দোকান থেকে ৯০ ভরি স্বর্ণালংকার, ৭৫ কেজি রুপা, নগদ টাকা ও একটি মোবাইলের প্রায় ৫০টি মোবাইল সেট লুট করে নিয়ে যায়। তবে ডাকাতির ঘটনার স্থল থেকে মাত্র ৫০-৬০ গজ দুরে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ি হওয়া সত্বে ডাকাতির ঘটনা সংঘঠিত হওয়ায় এলাকাবাসীর মাঝে দেখা দিয়েছে আতঙ্ক। ডাকাতির ঘটনায় নগদ টাকাসহ ৭০ লাখ টাকার মালামাল লুটে নিয়ে যায় বলে ক্ষতিগ্রস্তরা দাবি করেন।

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) দিনগত রাত আড়াইটায় উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের রাধানগর এলাকায় ডাকাতির সংঘঠিত হয়েছে।

স্বর্ণের দোকানদার উজ্জল জানান, প্রতিদিনের ন্যায় দোকানের কাজ শেষ করে রাতের বেলা দোকান বন্ধ করে বাড়িতে চলে যাই। গভীর রাতে মার্কেটের নৈশ্যপ্রহরী আব্দুল ও হাশেমের হাত পা বেধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৩০/৩৫ জনের একটি ডাকাতদল মার্কেটের তিনটি স্বর্ণের দোকান ও একটি মোবাইলের দোকানের তালা ভেঙ্গে ডাকাতি করে। এসময় ডাকাতদল তার স্বর্ণের দোকান হতে ৭০ ভরি স্বর্ণালংকার, ৪০ কেজি রুপা ও নগদ ৭ লাখ টাকা লুটে নিয়ে যায়। আর সকালে নৈশপ্রহরীদের কাছে জানতে পারি ডাকাতদল পুলিশের পোষাকধারী হয়ে মুখোশ পড়ে স্পীট বোর্ড দিয়ে এসে ডাকাতি করে আবার স্পীট বোর্ড দিয়ে চলে যায়।

তিনি আরও জানান, আমার পাশের মোস্তফার দোকানে ১০ ভরি স্বর্ণ ও ২০ কেজি রুপা, শাহিনের স্বর্ণের দোকান থেকে ১০ ভরি স্বর্ণ ও ১৫ কেজি রুপা ও মোক্তার হোসেনের মোবাইলের দোকান হতে ২০টি অপো, ১০ স্যামসং ও ১৫/২০ টি অন্যান্য মোবাইল সেট নিয়ে যায়।

নৈশপ্রহরী হাশেম জানান, পুলিশের পোষাক পড়ে একদল ডাকাত দল অস্ত্র হাতে নিয়ে প্রথমে আমাকে হাত পা বেধে মাটিতে ফেলে রাখে। পরে আব্দুলের হাত পা বেধে রেখে আমার সামনে ফেলে রাখে। পরে ডাকাতরা অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে কোন শব্দ করতে নিষেধ করে। ডাকাতরা আমাদের চোখের সামনে মার্কেটের তিনটি স্বর্ণের দোকান ও একটি মোবাইলের দোকানের তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে। পরে তারা দুটি বস্তা করে সর্বস্ব লুটে নিয়ে যায় এবং স্পীটবোর্ড দিয়ে চলে যায়। তারা সবাই মুখোশধারী ছিলো। কাউকে চেনা যায়নি।

আড়াইহাজার কালাপাহাড়িয়া পুলিশ ফাঁড়ি তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আব্দুল খালেক জানান, ঘটনার সংবাদ পেয়ে সকাল বেলা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিদর্শন করা হয়। উপজেলার রাধানগর এলাকার তিনটি স্বর্ণের দোকান ও একটি মোবাইলের দোকানের মালামাল লুটে নিয়ে যায় দূর্বৃত্তরা।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, উপজেলার কালাপাহারিয়ার রাধানগর এলাকায় মার্কেটের দুইজন নৈশপ্রহরীকে হাত পা বেধে তিনটি স্বর্ণের দোকান ও একটি মোবাইলের দোকান হতে মালামাল লুটে নিয়ে গেছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে এবং যাদের দোকানের মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে তাদের সাথে আলোচনা করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর ঘটনার সাথে সম্পৃক্তদের চিহ্নিত করে তাদেরকে গ্রেপ্তার ও লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আর পুলিশের পোষাক পড়ে ঘটনা ঘটিয়েছে এলাকার লোকজন জানিয়েছে আমরা সেই বিষয় নিয়েও তদন্ত করে দেখছি। এদিকে এর আগে জাঙ্গালিয়া গ্রামে ডাকাতির ঘটনা ঘটলেও মামলা কিংবা আসামী গ্রেফতার হয়নি।

SHARE

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here

20 − 20 =